নিখাদ স্কিন ব্রাইটেনিং প্যাক

#নিখাদ_স্কিন_ব্রাইটেনিং_প্যাক

এই কম্বো প্যাকটি থেকে ৭টি পণ্যের মধ্যে আপনি আপনার পছন্দ মতো যেকোনো ৫টি পণ্য কিনলেই পাবেন ৫০ গ্রাম নিখাদ চারকল #ফ্রি

  • ১০০ গ্রাম মুলতানি মাটি ১১০ টাকা,
  • ১০০ গ্রাম যষ্টিমধু গুড়া ১৫০ টাকা,
  • ১০০ গ্রাম আস্ত মাজুফল ২৬৫ টাকা,
  • ১০০ গ্রাম কস্তুরি হলুদ ১৫০ টাকা,
  • ১০০ গ্রাম অরেঞ্জ পিল পাউডার ১২৫ টাকা,
  • ১০০ গ্রাম নিমপাতা গুড়া ১২০ টাকা,
  • ৫০ গ্রাম রক্ত চন্দন গুড়া ২২০ টাকা

এই প্যাকে থাকছে এমন সব পন্য যা দিয়ে আপনি নিজেই একটা ওভারঅল স্কিন কেয়ার করতে পারেন ঘরে বসে । ক্যামিক্যাল ফ্রি এসব পন্য ব্যবহারে দিন আপনার স্কিনে ফিরে আসবে ন্যাচারাল গ্লো ও ব্রাইটসনেস।

যেকোন প্যাক লাগানোর আগে আপনার মুখ খুব ভালো ভাবে পানি দিয়ে ধুয়ে নিন। ন্যাচারাল প্যাক গুলো ব্যবহার আগে এক্সট্রা কোন ফেইস ওয়াস দিয়ে মুখ ধোবার প্রয়োজন নেই। যেহেতু প্যাক টি নিজেই ক্লিন করে।

এবার আসুন জেনে নেই, স্টেপ বাই স্টেপ কিভাবে স্কিন ব্রাইটেনিং প্যাক গুলো ব্যবহার করবেনঃ

#প্রথমে স্কিন টা এক্সফ্লিয়েট করে নিন।

তবে এর আগে কুসুম গরম পানির স্টিম নিয়ে নিন এতে পারেন ১-১.৫ মিনিট। বা কুসুম গরম পানিতে পরিষ্কার রুমাল ভিজিয়ে কিছুক্ষণ মুখে আলতো ভাবে কয়েক বার মুছে নিন।

  • #নিখাদ_রক্ত_চন্দন
  • #নিখাদ_রোজ_পাউডার

এ দুটো ন্যাচারল এক্সফ্লিয়েটর।

  • রক্ত চন্দন ও পাকা পেপে এক সাথে মিশিয়ে সার্কুলার মোশনে স্কিন রাব করুন, এরপর পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন।
  • রোজ পাউডার এর সাথে সামান্য টক দই বা নরমাল পানি মিশিয়ে বানিয়ে নিন স্ক্রাবার। এবার একই ভাবে মেসেজ করে ধুয়ে নিন।
  • সপ্তাহে ২ দিন স্ক্রাবিং করতে পারেন, এর বেশি করবেন না।

#দ্বিতীয়_ধাপ ফেইস মাস্ক বা প্যাক

প্যাক তৈরির নিয়মঃ

  • হাফ চামচ #নিখাদ_কাস্তুরি_হলুদ
  • হাফ চা চামচ #নিখাদ_যষ্টিমধু_গুড়া
  • হাফ চা চামচ #নিখাদ_মুলতানি_মাটি।
  • হাফ চা চামচ #নিখাদ_অরেঞ্জ_পিল_পাউডার।

#ব্যবহার_শুষ্ক_ত্বকের জন্যঃ

উপরে উল্লেক্ষিত সব উপাদান এর সাথে টক দই বা কাঁচা দুধ মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করুন এবার মুখে লাগিয়ে ১৫-২০ মিনিট অপেক্ষা করে ধুয়ে ফেলুন।

#ব্যবহার_অয়েলি বা #কম্বিনেশন_স্কিনের জন্য:

উপরে উল্লেক্ষিত সব উপাদান এর সাথে গোলাপ জল বা লেবুর রস মিশিয়ে প্যাক বানিয়ে ব্যবহার করা যাবে। কেউ যদি সুদিং ভাব চান তাহলে ঠান্ডা এলো ভেরা জেল বা গ্রিন টি যোগ করতে পারেন।

সপ্তাহে ৩-৪ দিন প্যাকটি ব্যবহার করলে এক সপ্তাহের মধ্যেই উপকার পাবেন।

কাস্তুরি হলুদ সান ট্যান দূর করে উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করতে সহায়তা করে, যষ্টিমধু বা লিকোরাইস স্কিনের ইমপিয়োরিটি দূর করে, স্কিনকে ব্রাইট ও রেডিয়েন্ট করে এর জুরি নেই। মুলতানি মাটি ব্লাড সার্কুলেশন বাড়ায়,পরস মিনিমাইজ করে, অরেঞ্জ পিল পাউডার স্কিনের গ্লো ফিরিয়ে আনতে ও ব্লাক হেইডস ও হোয়াইট হেডস দূর করতে সাহায্য করে।

#তৃতীয়_ধাপ

যাদের স্কিনে পিগমেন্টশন ও ওপেন পরস বেশি তারা ব্যবহার করুন মাজুফল। মাজুফল রিনক্লেল ও Anti aging এর জন্য কার্যকরী। ৫-৬ টা মাজুফল ৫০০ গ্রাম বা হাফ লিটার পানিতে সেদ্ধ করে, রাতে সেই পানি শোবার আগে পুরো ফেইসে লাগিয়ে নিন। চাইলে ৪-৫ দিনের জন্য ফ্রিজে রেখে ব্যবহার করতে পারেন।

Nikhad Skin Brightening Pack

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *